* ​৯ই জুন থেকে পাসপোর্ট ডেলিভারি পূর্ব নিধারিত সময়ে হবে * ​আইভেক ময়মনসিংহ এর মিশন পরিবর্তিত হয়ে সিলেট মিশন এর অধীনস্থ হয়েছে | * ​৫ই জুন এবং ৬ই জুন পবিত্র ঈদুল ফিতর উপলক্ষে ভারতীয় ভিসা সেন্টার বন্ধ * ​মেডিকেল ভিসা ধারকদের আগমনের ১৪ দিনের মধ্যে FRRO নিবন্ধন প্রয়োজন। * ​আন্তর্জাতিক ভ্রমণ কার্ড এবং ডলার অনুমোদন সুবিধা * ​খুলনায় নতুন ভারত সহকারী হাই-কমিশন স্থাপন * ​সিলেটে নতুন ভারত সহকারী হাই-কমিশন স্থাপন * ​ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্রসমূহে অতিরিক্ত রুট অনুমোদন সেবা * ​৫ আগস্ট ২০১৮ থেকে ভারতীয় ভিসা প্রক্রিয়াকরণ ফি ৮০০ টাকা নির্ধারিত হবে * ​আইভিএসি চট্টগ্রাম এ ভিসার আবেদন পত্র ০৮ঃ ৩ ০ ঘন্টা থেকে ১২ঃ০ ০ ঘন্টা পর্যন্ত গ্রহণ করা হবে * জালিয়াতি বা জাল কল সম্পর্কে সতর্ক থাকুন * ​ভিসা আবেদনকারীদের জন্য উপদেষ্টা * ​ভিসা আবেদন পত্র জমা দেয়ার পূর্ব শর্ত সমূহ
আমাদের সম্পর্কে

 ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্র বিশ্বের একটি অন্যতম বৃহত্তম ভিসা প্রক্রিয়াকরণ কেন্দ্র। ভারতীয় হাই কমিশন,ঢাকা, সহকারী ভারতীয় হাই কমিশন, চট্টগ্রাম, সহকারী ভারতীয় হাই কমিশন, রাজশাহী  এবং সহকারী ভারতীয় হাই কমিশন, সিলেট, সহকারী ভারতীয় হাই কমিশন, খুলনা -এর ভিসা সেবাসমূহ ভারতীয় স্টেট ব্যাংক আউটসোর্স করছে। ঢাকার গুলশানে অবস্থিত এসবিআই এর ভারতীয় ভিসা আবেদন কেন্দ্র (আইভিএসি) ২০০৫ সালের ডিসেম্বরে প্রতিষ্ঠিত হয়। তারপর প্রসারিত হয়ে আইভিএসি, চট্টগ্রাম প্রতিষ্ঠিত হয় অক্টোবর ২০০৬-এ, আইভিএসি, সিলেট জুলাই ২০০৯-এ, আইভিএসি, মতিঝিল জুলাই ২০০৯-এ, আইভিএসি, খুলনা মে ২০১১-তে, আইভিএসি, রাজশাহী ১১ই ডিসেম্বর ২০১২-তে, ধানমন্ডীতে উদ্বোধন হয় ১লা জানুয়ারী ২০১৫-তে এবং আইভিএসি, মিরপুরে স্থানান্তর হয় ১৩ই নভেম্বর ২০১৬-তে, এবং যশোরে আইভিএসি একসঙ্গে উদ্বোধন হয়, ২০শে ডিসেম্বর। ঢাকাতে আইভিএসি যমুনা ফিউচার পার্ক এ ১৪ ই জুলাই ২০১৯ তে উদ্ভোধন হয়। ঠাকুরগাঁও এবং বগুড়াতে আইভিএসি ৬ জানুয়ারী ২০১৯ উদ্ভোধন হয় | সর্বশেষ একসঙ্গে সাতক্ষীরা, ব্রাহ্মণবাড়িয়া, নোয়াখালী, কুমিল্লাতে ১৩ই জানুয়ারীতে আইভিএসি উদ্ভোধন হয়।

আইভিএসি বছরে বাংলাদেশী পাসপোর্টধারীদের প্রায় ৫ লাখ ভিসার আবেদন প্রক্রিয়াকরণ করে, যা, এ পর্যন্ত, সম্ভবত বিশ্বব্যাপী কোন ভিসা প্রক্রিয়াকরণ সংস্থা দ্বারা বৃহত্তম সংখ্যা হতে পারে। ভারতীয় স্টেট ব্যাংক (এসবিআই), সংখ্যাগরিষ্ঠ শেয়ারহোল্ডিং যা ভারতের বৃহত্তম বাণিজ্যিক ব্যাংক হিসাবে এবং এশিয়ার শীর্ষ ২০টি ব্যাংকের একটি হিসাবে ভারত সরকারের সাথে নিহিত রয়েছে। ভারতে এসবিআই এর ১৫০০০ শাখা এবং ভারতের বাইরে রয়েছে ১৮৬টি শাখা। বিশ্বব্যাপী ব্যবসায়িক কাজকর্মের জন্য এটির ২ লক্ষের উপর নিয়োগকৃত কর্মী রয়েছে। এসবিআই এ বছর অনেক সম্মাননা/ পুরষ্কার লাভ করেছে, তাদের মধ্যে অল্প কিছু উল্লেখযোগ্য নাম হল ব্যাংকার ম্যাগাজিন কর্তৃক বর্ষসেরা ব্যাংক বর্ষসেরা ব্যাংক ২০০৮-ইন্ডিয়া,কেপিএমজি কর্তৃক পুরষ্কৃত সবচেয়ে প্রশংসিত অবকাঠামোগত ধনিক”, ডান এন্ড ব্র্যাডশীট কর্তৃক এসএমই ফাইন্যান্সিং এর অধীনে শীর্ষ রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক” এবং এশিয়া মানি কর্তৃক চেয়ারম্যান কে “বেস্ট এক্সিকিউটিভ অ্যাওয়ার্ড”।

এসবিআই বাংলাদেশী নাগরিকদের সময়মত ও মানসম্মত সেবা প্রদানের জন্য বাংলাদেশে আরও ভিসা কেন্দ্র খোলার প্রস্তাব দিয়েছে। ভবিষ্যতে অন্যান্য সেবা ব্যবস্থা ব্যাপারেও বিবেচনা করা হচ্ছে। তাদের মধ্যে কয়েকটি হল:- মোবাইল ফোনে এসএমএস এর মাধ্যমে আবেদনের অবস্থা নিরূপণের জন্য অনলাইন পাসপোর্ট ট্র্যাকিং সিস্টেম - অনলাইন পেমেন্ট গেটওয়ের পরিচিতি করানো - ভ্রমণ সম্পর্কিত সেবাসমূহ যেমন টিকিট, বিভিন্ন মেডিকেল ও শিক্ষা প্রতিষ্ঠান এবং হোটেল আসন বুকিং ইত্যাদি।

ভারতীয় স্টেট ব্যাংক-ই ভিসার আবেদনপত্র গ্রহণের জন্য বাংলাদেশের একমাত্র অনুমোদিত সংস্থা।সকল আইভিএসি সেন্টারে সাজেশন ক্রম স্থাপন করা হয়েছে। সেবার উন্নয়নে যেকোন গঠনমূলক পরামর্শকে আমরা স্বাগত জানাই। আপনারা আপনাদের পরামর্শ আমাদের কাছে মেইলযোগে পাঠাতে পারেন এখানে: info@ivacbd.com

Design & Development By: